সহজ ভাষায় আরডুইনোর খুঁটিনাটি |Arduino Bangla

মজার হার্ডওয়্যার Arduino:
কোন যন্ত্র বা সিস্টেমকে যদি আপনি অটোমেটিক্যালি বা সংক্রিয়ভাবে চালাতে চান তবে অবশ্যই আপনাকে একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে আর সেটা হচ্ছে ওই যন্ত্র বা সিস্টেমে আপনাকে একটি মস্তিষ্কে স্থাপন করতে হবে যাতে করে ওই মস্তিষ্ক থেকে যতগুলো ইনস্ট্রাকশন ঐ যন্ত্র বা সিস্টেমে দেয়া হয় সেই অনুযায়ী যাতে যন্ত্র বা সিস্টেমে চলতে পারে।
আরডুইনো  (Arduino) হচ্ছে এরকম একটি মস্তিস্ক যেটার মাধ্যমে আপনারা খুব সহজেই কোন সিস্টেম বা যন্ত্রকে আপনার দেওয়া ইনস্ট্রাকশন অনুযায়ী সহজে চালাতে পারবেন।

আরডুইনোর কাজের কিছু উদাহরন:
ধরুন যখন বৃষ্টি আসবে আপনি অটোমেটিক্যালি একটি জানালা বন্ধ করতে চান, তো এর জন্য আপনাকে যে কাজটা করতে হবে সেটা হলো আপনাকে একটি Arduino এর সাথে Sensor Connect করতে হবে তারপর Coding এর মাধ্যমে এটা Arduino কে বলে দিতে হবে যে যখন Sensor পানির উপস্থিতি পাবে তখন যেন Arduino জানালার motor কে জানালা  বন্ধ করার আদেশ দেয়। সুতরাং Arduino একটি মস্তিস্কের মতো কাজ করে থাকে যা আপনি নিযে Program করতে পারবেন!

আরো একটি উদাহরণ দেওয়া যায়, ধরুন আপনারা বাসায় টিভি অন করার সাথে আপনি চাইছেন যে আপনার বাসার সবগুলো লাইট বন্ধ হয়ে যাক তো সেই ক্ষেত্রে আপনারা আরডুইনো কে কাজে লাগাতে পারেন এবং আরডুইনোর সাহায্যে মূলত বৈদ্যুতিক বাল্বে তথ্য যাবে যে টিভি অন করা হয়েছে এবং এই মুহূর্তে তোমাদেরকে নিভে যেতে হবে।

আবার ধরুন, আপনি হয়তোবা এমন একটি যন্ত্র তৈরি করেছেন যেটা আপনার বাসার আশেপাশে কোন মানুষের উপস্থিতি থাকলে তথ্য আপনার কাছে পাঠিয়ে দেবে এবং সেটা হতে পারে আপনার মোবাইল মেসেজের মাধ্যমে! এবং আপনি আপনার বাসার সম্পর্কে সকল তথ্য পেয়ে যাবেন যার কারণে আপনার বাসা সম্পর্কে আপনার কোন ধরনের মাথাব্যথা থাকবে না! কারণ আপনি জানেন আপনার বাসায় কেউ চুরি করতে ঢুকলে তা আপনি সবার আগে জেনে যাবেন আর এটা মূলত করা যাবে Arduino এর মাধ্যমে।বেশকিছু সেন্সর এই Project টা তে ব্যবহার করা হয় এবং মোশন সেন্সর যেখানে অন্যতম।

আরডুইনো কেন এত বেশি ব্যবহার করা হয়ে থাকে?
সারা পৃথিবীতে আরডুইনো কেন এত বেশি ব্যবহার করা হয়ে থাকে এর উত্তর যদি আমরা দিতে চাই তবে সর্ব প্রথমে আমাদেরকে যেটা জানতে হবে সেটা হচ্ছে, একটা আরডুইনোর দাম কত?  দামের দিক থেকে আরডুইনো দাম খুবই কম এবং যেটা আপনার প্রোগ্রাম করতে পারবেন এবং নিজেদের মতো করে আপনারা বিভিন্ন Advantage যোগ করতে পারবেন! এজন্য যে আপনাদেরকে Rocket Scientist হতে হবে তা কিন্তু নয়, আপনারা চাইলে সাধারন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে এই সব কাজ করতে পারবেন।

ইন্ডাস্ট্রিতে আরডুইনো ডিরেক্টলি ইউজ করা না হলেও আপনারা আরডুইনো শেখার মাধ্যমে হার্ডওয়ার সম্পর্কে অনেক জ্ঞান অর্জন করতে পারেন এবং যেগুলোকে আপনার পরবর্তীতে নিজেদের প্রজেক্টে কাজে লাগাতে পারেন। আর চাইলে আপনারা আরডুইনোর মতন আরও ভাল মানের controlar তৈরি করতে পারেন যেটা আপনাকে সাহায্য করবে আপনার সেই যন্ত্রটাকে চালানোর জন্য এবং আরডুইনো ঠিক যেভাবে Command গুলো দিয়ে থাকে বিভিন্ন যন্ত্রাংশের মধ্যে ঠিক সেভাবে আপনি চাইলে একটি মাইক্রোকন্ট্রোলার সিস্টেম তৈরি করতে পারেন যেটা আপনার সকল ধরনের তথ্য প্রেরণ করবে এবং আপনার ওই যন্ত্রটা চালাতে পুরোপুরিভাবে সাহায্য করবে সুতরাং Arduino এর Basic কাজ জানাটা আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ!

আরডুইনো শেখার জন্য আমরা কি কি করতে হবে?
এখন প্রশ্ন আসতে পারে আরডুইনো শেখার জন্য আমরা কি কি করতে পারি, এর জন্য আমাদেরকে প্রথমে যে কাজটা করতে হবে সেটা হচ্ছে আমাদের একটি আরডুইনো প্রয়োজন হবে এবং সেই আরডুইনো টা আমরা মূলত যেকোনো ইলেকট্রনিক্সের দোকান থেকে কিনে ফেলতে পারি এমনকি অনলাইন থেকেও কিনতে পারি! Arduino র অনেকগুলো মডেল আছে যেমন Arduino Uno, Arduino Due, Arduino Mega, Arduino Leonardo ইত্যাদি। যেহেতু আমরা beginner তাই আমাদের জন্য আদর্শ হোল Arduino Uno এবং Arduino MEGA 2560 মডেল দুটি। নিচে যে ছবিটি দেখতে পাচ্ছেন এখানে দেখতে পাবেন যে আরডুইনোর বিভিন্ন অংশকে আমরা উল্লেখ করেছি এবং এই বিষয়গুলো যদি আপনি পুরোপুরি জানতে ও বুঝতে পারেন যে কোন জিনিসটি আপনি কিভাবে ইউজ করবেন তবে অবশ্যই আপনি আরডুইনো নিয়ে কাজ করার জন্য প্রস্তুত।
arduino uno

এর পরবর্তীতে আপনাকে যেটা জানতে হবে সেটা হচ্ছে ঠিক কিভাবে আপনারা একটি প্রোগ্রাম লিখতে পারেন। আরডুইনো প্রোগ্রামিং এর জন্য নিজস্ব একটি IDE রয়েছে যেটার মাধ্যমে আপনি চাইলে programming করতে পারেন। Program Arduino তে input করার জন্য আপনার প্রয়োজন হবে একটি তারের প্রয়োজন হবে যাকে USB cable type A/B বলা হয়। যা আপনার কম্পিউটারের USB port এর সাথে Arduino connect করে দেবে।

একটি ডিভাইস কিভাবে কাজ করবে সেটা সম্পর্কে তো আমাদের ধারণা আছে! এবার ধরুন আমরা একটি লাইট জ্বালাতে চাই, এজন্য বাল্বের মধ্যে আমাদেরকে পাওয়ার দিতে হবে। ধরুন লাইট জ্বালাতে হলে আমাদেরকে ২৪ ভোল্টের প্রয়োজন হবে কিন্তু আরডুইনো থেকে সরাসরি আপনি ২৪ ভোল্ট নিতে পারবেন না। যার কারণে আপনার ভোল্টেজ রেগুলেটর প্রয়োজন হবে বা এক্সটারনাল একটি ভোল্টেজ সাপ্লাই এর প্রয়োজন হবে সেই ক্ষেত্রে একটি ভোল্টেজ সাপ্লাই সিস্টেম কিভাবে কাজ করে থাকে বা ভোল্টেজ রেগুলেটর কিভাবে কাজ করে থাকে তা সম্পর্কে আপনার ভালো ধারনা থাকতে হবে। একইভাবে আপনার Arduino তে Connect করা হয় এমন সব যন্ত্র সম্পর্কে ভালো idea থাকতে হবে। এর পর আপনার আরও কিছু জিনিস বিষয়ে idea থাকতে হবে যেমন jump wire, breadboard, soldering iron, soldering flux, servo motor, Veroboard, Arduino display ইত্তাদি। এ সব বিষয় নিয়ে আপনাকে একটু ঘাটাঘাটি করতে হবে এবং যখন আপনি এগুলোর কাজ জেনে যাবেন তখন বুঝতে পারবেন যে কিভাবে আপনারা এই জিনিসশগুলো পুরোপুরিভাবে কাজে লাগাতে পারবেন।

পরবর্তীতে যে বিষয়টি আছে সেটা হচ্ছে সেন্সার। সেন্সার নিয়ে যদি আপনি কাজ করতে চান তবে অবশ্যই আপনাকে প্রথমে বিভিন্ন সেন্সর সম্পর্কে জানতে হবে। তবে Arduino এর মধ্যে built in কিছু সেন্সর থাকে যেগুলো সম্পর্কে আপনাদেরকে জানতে হবে এবং পরবর্তীতে আপনারা হয়তোবা Temperature Sensor, Accelerometer, IR Sensor, Pressure Sensor, Light Sensor, Ultrasonic Sensor, Smoke, Gas sensor, Alcohol Sensor, Touch Sensor, Humidity Sensor, Tilt Sensor, Level Sensor এ ধরনের বিভিন্ন সেন্সর নিয়ে কাজ করবেন এবং যে সেন্সর গুলো সম্পর্কে আপনার পুরোপুরি ধারণা থাকতে হবে। এবং যদি সেগুলো সম্পর্কে আপনার ধারণা না থাকে তবে বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম রয়েছে যেগুলো থেকে আপনার খুব সহজেই সেগুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন এবং এই আর্টিকেল শেষে আমরা অনেকগুলো লিঙ্ক দেবো যেখান থেকে আপনারা খুব সহজে Arduino এর আদ্যোপান্ত জানতে পারবেন ও শিখতে পারবেন।

ইন্টারনেটে চাইলেই আপনারা আরডুইনো বিষয়ক বিভিন্ন আর্টিকেল খুঁজে পাবেন, বিভিন্ন ভিডিও খুঁজে পাবেন যেগুলো থেকে আপনারা নতুন নতুন অনেক প্রজেক্ট সম্পর্কে আইডিয়া পেয়ে যাবেন এবং সেই আইডিয়াগুলোকে কাজে লাগিয়ে আপনারা অনেক ভালো মানের কিছু যন্ত্র তৈরি করতে পারবেন। এবং সে যন্ত্রপাতিগুলো আপনার বিজ্ঞান মেলায় দেখাতে পারেন। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে অবশ্যই আপনাদেরকে যন্ত্র বিষয়ে জ্ঞান রাখতে হবে।

Arduino শেখার কিছু source:


যদি এই ব্লগ থেকে কোন কিছু শিখে থাকেন তবে অবশ্যই ব্লগটিকে Follow করতে ভুলবেন না। নতুন নতুন সব পোস্ট এর Notification 🔔 পেতে Email Subscription activate করে রাখুন।

সাকিব মাহমুদ
পাঠগৃহ

Post a comment

0 Comments