শুভ জন্মদিন হাশিম আমলা

আধুনিক ক্রিকেটের যে ক’জন সেরা ক্রিকেটার আছেন তাদের মধ্যে হাশিম আমলা থাকবেন উপরের দিকেই। আর যদি ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা ভদ্র খেলোয়ারের নাম নিতে হয় তবে তা নিঃসন্দেহে হাশিম আমলাই। আজ হাশিম আমলার জন্মদিন। ১৯৮৩ সালের আজকের দিনে (৩১শে মার্চ) হাশিম আমলা দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবানে জন্মগ্রহণ করেন। তার দাদা অবশ্য ছিলেন ভারতের গুজরাটের সুরাট শহরের বাসিন্দা।

happy-birthday-hashim-amla

হাশিম আমলার অনূর্ধ্ব ১৯ ক্যারিয়ার নিয়ে কথা বলতে চাইলে বলা যায় অনেক কথা। তবে দুটো বলেই আপাতত শেষ করি। 

  • ২০০০-০১ মৌসুমে আমলা অ-১৯ দলে ডাক পান।
  • ২০০২ সালেই দলের অধিনায়ক হয়ে যান।


হাশিম আমলার টেস্ট অভিষেক ঘটে ২০০৪ সালের ২৮শে নভেম্বর। ভারতের মাটিতে, ভারতের বিপক্ষে শুরুর ম্যাচে ২ ইনিংসে রান করেন ২৪ ও ২। পরের ২ ম্যাচ খেলেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। সুবিধা করতে না পারায় বাদ পরেন দল থেকে। দেড় বছর পর ২০০৬ সালের ২৭ এপ্রিল আমলা ফিরেন দলে। প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একাই খেলেন ১৪৯ রানের ইনিংস। সেই থেকে নিয়মিতই দলে আছেন হাশিম মুহাম্মদ আমলা।


টেস্ট স্পেশালিস্ট ভাবা হতো আমলাকে। তাই একদিনের ক্রিকেটে অভিষেকটা হয় একটু দেড়িতে। ২০০৮ সালের ৯ মার্চ, বাংলাদেশের বিপক্ষে বাংলাদেশের মাটিতে অভিষেক। শুরুটা এখানেও খুব একটা ভালো করতে পারেননি। তবে ২০০৮ সালেরই ৯ নভেম্বর আমলা বাংলাদেশের বিপক্ষেই খেলেন ১৪০ রানের ইনিংস। সেখান থেকে আমলা একদিনের ক্রিকেটেও এগিয়ে চলেছে সমান তালে। 


ওডিআই ক্রিকেটের দ্রুততম ২ হাজার, ৩ হাজার, ৪ হাজার, ৫ হাজার, ৬ হাজার এবং ৭ হাজার রানও তারই। ভিরাট কোহলির থেকে অনেক এগিয়ে ছিলেন তখন হাশিম আমলা। টেস্ট আর ওডিআই, দুই ফরমেটেই ৪৫ এর বেশি গড় নিয়ে খেলে ৮ হাজারের বেশি রান করা ব্যাটসম্যান শুধু দুইজন। এবিডি ভিলিয়ার্সের পর দ্বিতীয় জন হাশিম আমলাই। 


ওডিআই ক্রিকেটে তাঁর শতক সংখ্যা ২৭ টি। দুই ফরমেটেই ২৫ টির উপর সেঞ্চুরি আছে আমন ব্যাটসম্যান বিশ্বে আছে মাত্র ৫ জনের। হাশিম আমলা সেই ৫ জনের মধ্যে একজন। হাশিম আমলার আন্তর্জাতিক টি২০ স্ট্রাইক রেট ১৩২ এর উপরে। আইপিএলে আছে দুটি শতক। 


হোম কিংবা অ্যাওয়ে, হাশিম আমলা সবসময়ই সেরা। ২০০৭ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে খেলা অ্যাওয়ে টেস্ট ম্যাচগুলোতে আমলার গড় বাকি সবার থেকে বেশি, ৬২.২৮। মোট রানও সবার থেকে বেশি। তবে অধিনায়ক হিসেবে হাশিম আমলা খুব বেশিদিন খেলেননি। 


হাশিম মুহাম্মাদ আমলা মোট ১২৪ টেস্টে শতক করেছেন ২৮টি, ওডিআই এর ১৮১ ম্যাচে করেছেন ২৭ টি। ২৩৮টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে আমলার সংগ্রহ ৪৮.৫২ গড়ে ১৭ হাজার ৮০৯ রান, শতক ৫২ টি আর অর্ধশতকের সংখ্যা ৮৮। ২৪৩টি লিস্ট-এ ম্যাচে ৩০ শতক, ৫২ অর্ধশতক আর ৪৫.১২ গড়ে মোট সংগ্রহ ৯,৯৭৩ রান। লিস্ট-এ তে আর ২৭ রান করলেই ছুঁয়ে ফেলতেন ১০ হাজারের মাইলফলক। তবে এসব মোহ আমলাকে ধরতে পারেনি কোনোদিন। ঠিকই বিদায় নিয়ে নিয়েছেন নিজ থেকে। ২০১৯ সালের ৮ আগস্ট ঘোষণা দেন অবসরের। যেখানে তাঁর শেষ ম্যাচেও খেলেছিলেন ৮০ রানের অপরাজিত ইনিংস। ম্যাচ জিতিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকাকে, বিশ্বকাপের মঞ্চে। 


হাশিম আমলাকে মনে রাখবে ক্রিকেট বিশ্ব। হাশিম আমলা, ইউ আর দ্যা গ্রেটেস্ট এভার জেন্টলম্যান ইন দ্যা হিস্ট্রি অব জেন্টলম্যান’স ক্রিকেট। শুভ জন্মদিন হাশিম আমলা। 

Featured Photo by Shailendra Bhojak

Tags

Post a comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Below Post Ad